কেনিয়ায় পুলিশে-পুলিশে প্রেম নিষিদ্ধ!

পূর্ব আফ্রিকার দেশ কেনিয়ার জাতীয় পুলিশ বাহিনী (এনপিএস) কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রেম আর বিয়ে নিষিদ্ধ করছে। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রেড ম্যাটিয়াং আজ জানিয়েছেন, পুলিশ কর্মকর্তাদের মধ্যে অপরাধপ্রবণতা কমানো আর শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কেনিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রেড ম্যাটিয়াং বলেছেন, ‘আমরা একটা সীমা টেনে দিতে চাই। তবে পুলিশ বাহিনীতে ইতোমধ্যে যারা একে অপরের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ রয়েছেন, তাদের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সিনিয়র পুলিশ অফিসার যারা তাদের জুনিয়র পুলিশ অফিসারদের সাথে সম্পর্কে রয়েছেন, সম্পর্ক স্থাপন করতে চান কিংবা তাদের বিয়ে করতে চান, তাদের একজনকে চাকরি ছেড়ে চলে যেতে হবে। আমরা এভাবে আর চলতে দিতে পারি না।’

ফ্রেড ম্যাটিয়াং জানান, সামরিক বাহিনীতের বিভিন্ন পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রেম আগেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গত কয়েক মাসে পুলিশ কর্মকর্তাদের মধ্যে স্বামী বা স্ত্রীকে হত্যার ঘটনা বেড়ে গেছে। ফলে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া ছাড়া এটি আর থামানো যাচ্ছে না।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সিটিজেন টিভি জানাচ্ছে, ২০২০ সালে দেশটির ইনডিপেন্ডেন্ট পুলিশিং ওভারসাইট অথরিটি (আইপিওএ) কয়েক শত নারী পুলিশ নারী পুলিশ কর্মকর্তার কাছ থেকে তাদের সিনিয়রদের দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ পেয়েছিল।

আইপিওএ পরিচালিত ২০১৩ সালের একটি সমীক্ষা থেকে জানা গেছে, কেনিয়ার পুলিশ বাহিনীতে অহরহ এসব যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটছে। ওই সময় পুলিশের কার্যক্রম তদারকি করা ওই সংস্থাটি এক বছরে ৭৫৯ জন নারী পুলিশ এমন অভিযোগ করেন বলে জানায়।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী কেনিয়ার একটি পুলিশ কলেজে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আগামী জুলাই থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। তবে সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার আগে তা জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের অনুমোদন পেতে হবে।

About admin

Check Also

বাজছে ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিদায় ঘন্টা

ইসরায়েলের রাজনৈতিক মঞ্চে নানা নাটকীয়তার পর দেশটিতে রেকর্ড সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী থাকা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু যুগের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *