চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা, জেনে নিন প্রশ্ন পদ্ধতি

বরাবরের মতো ভর্তিচ্ছুদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। এবারো তার ব্যতিক্রম হয়নি। ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৩ শিক্ষার্থী। সে হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৭ জন।
তবে স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয়ে পাড়ি জমাতে ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির পাশাপাশি প্রশ্নপদ্ধতি সম্পর্কেও জানা জরুরি। নতুবা শেষ মুহূর্তে এসে ঝামেলায় পড়তে হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় যে প্রশ্নপদ্ধতি অনুসরণ করা হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত..

‘এ’ ইউনিট: বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত এই ইউনিটে বাংলা ১০ (বাধ্যতামূলক) ইংরেজি ১৫ (বাধ্যতামূলক), গণিত, পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান, এই চারটির যেকোনো তিনটির উত্তর দিতে হবে। এক্ষেত্রে তিনটিতে ২৫ নম্বর করে ৭৫ মার্কস। এক্ষেত্রে উত্তীর্ণ হতে বাংলায় ৩, ইংরেজিতে ৪ ও বাকি তিনটিতে ১০ মার্কস করে পেতে হবে।

‘এ’ ইউনিটের জন্য গুরত্বপূর্ণ তথ্য-

১. গণিত, রসায়ন, জীববিজ্ঞান- এই তিনটির উত্তর দিলে পদার্থবিজ্ঞান ছাড়া বাকি সব বিষয়ে ভর্তি হওয়া যাবে।
২. গণিত ছাড়া বাকি তিনটি বিষয় রসায়ন, পদার্থ, জীববিজ্ঞান উত্তর দিলে গণিত ও পরিসংখ্যান ছাড়া সব বিষয়ে ভর্তি হওয়া যাবে।
৩. রসায়ন ও জীববিজ্ঞানের যেকোনো একটি উত্তর না দিলে অনেক বিষয়ে পড়ার জন্য বিবেচিত হবে না। এক্ষেত্রে ভর্তি হওয়ার সুযোগও খুব কম থাকবে।
৪. তাই উত্তর দেয়ার বেস্ট সিকোয়েন্স হতে পারে, জীববিজ্ঞান, রসায়ন, (গণিত অথবা পদার্থ), ইংরেজি, বাংলা।

‘বি’ ইউনিট: কলা ও মানববিদ্যা অনুষদভুক্ত এই ইউনিটে বাংলা-৩৫, ইংরেজি-৩৫, সাধারণ জ্ঞান-৩০ মার্কস। সর্বমোট ৪০ পেলে পাস। তবে যারা চারুকলা, নাট্যকলা ও সংগীত বিভাগে ভর্তি হতে ইচ্ছুক, তারা ২০ মার্কের অতিরিক্ত ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

‘সি’ ইউনিট: ব্যবসায়ে প্রশাসন অনুষদভুক্ত এই ইউনিটে ইংরেজি-৩০, হিসাব বিজ্ঞান-৩৫, ব্যবসায় নীতি ও প্রয়োগ-৩৫। এক্ষেত্রে ইংরেজিতে ৮, হিসাব বিজ্ঞানে ১২ এবং ব্যবসায় নীতি ও প্রয়োগে ১২ পেয়ে পাস করতে হবে। সর্বমোট ৪০ পেলে পাস।

‘ডি’ ইউনিট: সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত এই ইউনিটে বাংলা-৩০, ইংরেজি-৩০, বিশ্লেষণ দক্ষতা- ২০, (সাধারণ জ্ঞান/ গণিত/অর্থনীতি)-২০। এক্ষেত্রে যেকোনো ১টির উত্তর দিতে হবে। এছাড়া স্পোর্টস সায়েন্সে যারা যেতে চায় তাদের ফিল্ড টেষ্ট ২০ মার্কস ও সার্টিফিকেট ১০ মার্কস থাকবে।

পরীক্ষা আগের মতোই: ভর্তি পরীক্ষা বরাবরের মতোই ১২০ নম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। বহুনির্বাচনি পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বাকি ২০ নম্বর এসএসসি ও এইচএসসি জিপিএ থেকে যুক্ত হবে। প্রতি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষায় নূন্যতম পাস নম্বর হবে ৪০।

পরীক্ষা যখন: এবারের ভর্তি পরীক্ষা স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। ক্যাম্পাসে ২২ হাজার শিক্ষার্থী বসার মতো আসন রয়েছে। এক্ষেত্রে আবেদনকারীর সংখ্যা বিবেচনায় ১৫ হাজার করে পরীক্ষা কয়েক শিফটে নেয়া হবে। আগামী ২০ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউট রয়েছে। সে হিসেবে ‘এ’ ইউনিটে আসন আছে ১ হাজার ২১৪ট, ‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ২২১টি, ‘সি’ ইউনিটে ৪৪২টি ও ‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৫৭টি। এছাড়া দুইটি উপ ইউনিটের মধ্যে ‘বি১’ ইউনিটে আসন রয়েছে ১২৫টি ও ‘ডি১’ ইউনিটে ৩০টি আসন রয়েছে।

এছাড়া ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (https://admission.cu.ac.bd) পাওয়া যাবে।

About admin

Check Also

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস: সংক্রমণ ও প্রতিকার

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস: সংক্রমণ ও প্রতিকার করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় ভারত যখন বিপর্যস্ত ঠিক তখনই ব্ল্যাক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *